1. mahbub@krishinews24bd.com : krishinews :

” কৃষি অন্বেষণ”পর্ব-৩২# বিষয়ঃ “নার্সারী” জাত সম্প্রসারণে সহায়ক

  • আপডেট টাইম : Tuesday, April 6, 2021
  • 93 Views
” কৃষি অন্বেষণ”পর্ব-৩২# বিষয়ঃ "নার্সারী" জাত সম্প্রসারণে সহায়ক
” কৃষি অন্বেষণ”পর্ব-৩২# বিষয়ঃ "নার্সারী" জাত সম্প্রসারণে সহায়ক

কৃষিবিদ কামরুল ইসলাম

নার্সারি একটি শিল্প। যে কোন চারা কিনতে গেলে আমরা সাধারণত নার্সারি থেকে কিনে থাকি। তবে সেই নার্সারি থেকে চারা কেনার পূর্বে ক্রেতার কিছু বিষয়ে জানা থাকা প্রয়োজন, যাতে করে তিনি কোনভাবে প্রতারিত না হন। আবার যিনি নার্সারি উদ্যোক্তা, তিনি যেন সরকারী বিধিমালা মেনে সততার সাথে গ্রাহকদের কাছে চারা সরবরাহ করে তার শিল্পের প্রসার ঘটাতে পারেন, সেই জন্যে উদ্যক্তাকেও জানতে হবে অতি প্রয়োজনীয় কিছু ” সরকারী গাইডলাইনস”।
নার্সারি স্থাপনে করণীয় ও নার্সারি থেকে চারা কেনার আগে একজন ক্রেতার যা জানা দরকারঃ
—————————————————————–
“নার্সারী গাইডলাইনস, ২০০৮” অনুসারে একজন উদ্যোক্তাকে নার্সারী স্থাপন করতে গেলে নিন্মক্ত নির্দেশনাসমূহ অনুসরণ করতে হয় –
১) নার্সারীর নাম, পূর্ণ ঠিকানা ও রেজিস্ট্রেশন সম্বলিত সাইনবোর্ড থাকতে হবে।
২) সাইনবোর্ড কমপক্ষে ৩*২ মাপের হবে।
৩) নার্সারীর জন্য নিজস্ব,বন্দোবস্ত বা ভাড়া করা জমি থাকতে হবে।
৪) উঁচু, বন্যামুক্ত ও পর্যাপ্ত আলো বাতাসযুক্ত স্থানে নার্সারী স্থাপন করতে হবে।
৫) পানি সেচ ও পানি নিষ্কাষণের সু-ব্যবস্থা থাকতে হবে ।
৬) প্রয়োজন অনুযায়ী নার্সারীতে অন্যান্য সুবিধা যেমন নার্সারী সেড, মিস্ট প্রোপাগেশন হাউজ, নেট হাউজ, ল্যাথ হাউজ বা পলি হাউজ এর ব্যবস্থা থাকতে হবে ।
৭) নার্সারী সুরক্ষার জন্য বেড়া থাকতে হবে ।
৮) নার্সারীর ভিতর চলাচলের সুব্যবস্থা থাকতে হবে ।
৯) উদ্যান নার্সারীর বেলায়, প্রয়োজন হলে, ছায়া প্রদানকারী গাছ থাকতে হবে । তবে বনজ নার্সারীর বেলায় ছায়া প্রদানকারী গাছ অত্যাবশ্যক নয়।
১০) মাতৃগাছের উৎস হতে বীজ, সায়ন, কুড়ি সংগ্রহ করতে হবে।
১১) বীজ থেকে চারা উৎপাদনের স্থায়ী বেড থাকতে হবে ।
নার্সারী নিবন্ধীকরণের পদ্ধতিঃ
—————————————–
নতুন নার্সারী স্থাপন ও ইতোমধ্যে স্থাপিত নার্সারী পরিচালনার জন্য নিবন্ধীকরণের প্রয়োজন।
নার্সারি নিবন্ধন প্রক্রিয়া অত্যন্ত সহজ একটি প্রক্রিয়া। নিবন্ধীকরণের জন্য নির্ধারিত ফরম পূরণ করে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার মাধ্যমে উপপরিচালক, কৃষি সম্প্রপ্রসারণ অধিদপ্তর (ডিএই) বরাবর আবেদন করতে হয়।
© নিবন্ধন সনদ গ্রহণ করার পূর্বে “ লাইনেন্স ফি” বাবদ ৫০০/-(পাঁচশত) টাকা চালানের মাধ্যমে (খাতের কোড নম্বরঃ ১-৪৩৩১-০০০০-১৮৫৪) জমা দিতে হয়। কতৃর্পক্ষের পক্ষে উপপরিচালক, ডিএই নির্ধারিত নির্ণায়কের মাধ্যমে আবেদনের গ্রহণযোগ্যতা যাচাই বাছাই পূর্বক নিবন্ধন প্রদান করেন।
© প্রতি পাঁচ বৎসর অন্তর নিবন্ধন নবায়ন করতে হয়। প্রতিবার নবায়নের জন্য নির্দিষ্ট ফরমে আবেদনসহ ৫০০/-(পাঁচশত) টাকা চালানের মাধ্যমে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা (কতৃর্পক্ষের) বরাবর জমা দিতে হয় ।
বীজ, চারা, কলম বা প্রপাগিউল বাজারজাতকরণ/বিপণনে করণীয় বিষয়সমূহঃ
—————————————————————-
১) পোকা-মাকড় ও রোগমুক্ত, সবল, সতেজ প্রপাগিউল বাজারজাত করতে হবে। অনুপযোগী (Cull Seedling) ) চারা বিক্রি করা যাবে না।
২) সঠিক বয়সের চারা, কলম বা প্রপাগিউল বাজারজাত করতে হবে। অপরিপক্ক বীজ, অপরিণত বয়সের চারা, কলম বা প্রপাগিউল বাজারজাত করা যাবে না। বৃক্ষ ও গুল্ম জাতীয় ফুলের চারার বয়স ২ বছরের মধ্যে বাজারজাত করা যাবে।
৩) বাজারজাতকালীন সময়ে ট্যাগ-লেবেল থাকতে হবে। ফুল, ফল, বনজ ও ভেষজ উদ্ভিদেও প্রপাগিউলের ক্ষেত্রে প্রতি চারায়/কলমে এবং অন্যান্য উদ্যান ফসলের বেলায় সুবিধাজনক অংশে ট্যাগ-লেবেল থাকতে হবে। ট্যাগ-লেবেলে নার্সারীর নাম, সংক্ষিপ্ত ঠিকানা, প্রপাগিউল সামগ্রীর নাম, জাত, বীজের উৎস ও বীজ লাগানো বা কলম বাঁধার তারিখ লিপিবদ্ধ থাকতে হবে।
৪) বাজারজাতকরণের পূর্বে আগ্রহী নার্সারী মালিকগণ নিজ দায়িত্বে বীজ প্রত্যয়ন এজেন্সি (এসসিএ) হতে চারা, কলম বা প্রপাগিউলের সার্টিফিকেট সংগ্রহ করতে পারবেন। চারা, কলম বা প্রপাগিউল তৈরীর পর তা সঠিকভাবে নির্দেশনার জন্য নার্সারীর নাম,রেজিস্ট্রেশন, সংক্ষিপ্ত ঠিকানা, জাতের নাম, বীজ বপনের তারিখ ও বীজ/সায়ন -এর উৎস ও তারিখ সম্বলিত ট্যাগ দ্বারা লেবেল করতে হবে।
৫) সার্টিফাইড বীজ, কন্দ, টিউবার, ইত্যাদি প্রপাগিউলের ক্ষেত্রে নার্সারীতে অঙ্কুরোদগম ক্ষমতা কমপক্ষে ৮০% হতে হবে।
৬) নার্সারীর মাটি বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে সময়ে সময়ে পরিশোধন করতে হবে।
৭) সীড বেড থেকে উত্তোলনের সময় নার্সারীর চারা/কলম একবারের বেশী খাসী (মূল শিকড় কর্তন) করা যাবে না।
৮) একাধিক বার খাসী করা কলমের গাছ বিক্রয় করা যাবে না।
উদ্যান ফসল এবং বনজ, ভেষজ ও শোভাবর্ধনকারী উদ্ভিদের বীজ, চারা-কলম বা প্রপাগিউল আমদানি নির্দেশিকাঃ
——————————————————————-
১) প্রপাগিউল আমদানির ক্ষেত্রে প্ল্যান্ট কোয়ারেন্টাইন আইন অনুসরণ করতে হবে।
২) প্ল্যান্ট কোয়ারেন্টাইন আইনে উল্লেখিত কৃত্রিম বা প্রাকৃতিক মিডিয়ায় উৎপাদিত প্রপাগিউল ছাড়া বিদেশ থেকে কোন প্রপাগিউল আমদানি করা যাবে না। মাটিতে উৎপাদিত বা শিকড়ে মাটি রয়েছে এমন কোন চারা বা কলম আমদানি সম্পূর্ণভাবে নিষিদ্ধ।
চারা কেনার পূর্বে গ্রাহক/ ক্রেতাদের করণীয়ঃ
————————————————————
চারা কেনার পূর্বে উপরোক্ত নির্দেশিকা অনুসরণ করছে কিনা সেটা যাচাই করে নিন এবং রশিদের মাধ্যমে চারা ক্র‍য় করুন। অনলাইনে চমকপ্রদ বিজ্ঞাপন দেখে চারা ক্রয় করবেন না, কেনার আগে স্থানীয় উপজেলা কৃষি অফিস/ বিশ্বস্ত মাধ্যম থেকে আগে জেনে নিন, সেইটা সঠিক নিয়ম মেনে নার্সারি ব্যবসা পরিচালনা করছে কিনা।
® তাই আসুন,নার্সারি গাইডলাইনস মেনে লাইসেন্স গ্রহণ করে ব্যবসা পরিচালনা করি এবং ফসলের জাত সম্প্রসারণে অবদান রাখি।
® “কৃষি অন্বেষণ” কৃষি বিষয়ক জ্ঞান অর্জনের একটা উন্মুক্ত প্লাটফর্ম। এখানকার যে কোন লিখার ব্যাপারে গঠনমূলক সমালোচনা ও পরামর্শ সাদরে গ্রহনীয়৷

যোগাযোগ————-
কৃষিবিদ কামরুল ইসলাম
৩৫ তম বিসিএস কৃষি
কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার
বাঘা, রাজশাহী

 

নিউজ টি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন...

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2020 krishinews24bd

Site Customized By NewsTech.Com