1. mahbub@krishinews24bd.com : krishinews :
শিরোনাম
বেতাগীতে মাঠ ভরা বোরোর সবুজ ধানে দোল খাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন শাক বীজ উৎপাদনে চুয়াডাঙ্গার কৃষকদের ভাগ্য বদল সারাদেশে বিনামূল্যে কৃষকের ধান কাটার উদ্বোধন করল কৃষক লীগ হিটশকে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য ৪২ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ব্রি উদ্ভাবিত জাতগুলো খাদ্য উৎপাদনে বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনবে সরকার কৃষকের ধানের ন্যায্য দাম নিশ্চিত করবে: খাদ্যমন্ত্রী বেতাগীতে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন বেতাগীতে বাদাম চাষে ঝুঁকে পড়ছে কৃষক শুরু হলো বাংলাদেশ সয়েল ক্লাবের নতুন সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম বাঘা থেকে প্রত্যয়ন নিয়ে ধান কাটতে এলাকা ছাড়ছেন ২০ হাজার শ্রমিক

দূর্গাপুরে কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় মৌমাছির মৃত্যু

  • আপডেট টাইম : Wednesday, August 26, 2020
  • 209 Views
কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় মৌমাছির মৃত্যু
কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় মৌমাছির মৃত্যু

নিউজ ডেস্কঃ

রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আলিপুর ইউনিয়নের মৌচাষী মো.সহিদুল ইসলামের মৌ বাক্সে হঠাৎ ঝাঁকে ঝাঁকে মৌমাছি মারা যেতে থাকে। তিনি বুঝতে পারছিলেন না, কি কারনে তার পোষা মৌমাছিগুলো মারা যাচ্ছে। এসময় তিনি শরণাপন্ন হন দূর্গাপুর উপজেলা কৃষি অফিসার জনাব মোঃ মশিউর রহমানের। এ ব্যাপারে তিনি মৌচাষীকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা যোগাযোগ করেন শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ডক্টর সাখাওয়াত হোসেন মামুন এর সাথে। প্রফেসর ড. শাখাওয়াত বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে মৌমাছির গুলো পরীক্ষা করে দেখেন। তিনি পরীক্ষা করে জানান, শাকসবজিতে যেসব কীটনাশক স্প্রে করা হয়, সেসব কীটনাশক যুক্ত পানি খাবার কারণে মৌমাছিগুলো ঝাঁকে ঝাঁকে মারা যাচ্ছে। মূলত কীটনাশকের বিষক্রিয়ায় এই অপমৃত্যু। তিনি এ ব্যাপারে বলেন, মৌমাছি গুলোকে খাবার স্যালাইন খাওয়াতে হবে এবং মৌ বাক্স গুলো দ্রুত সম্ভব অন্যত্র সরিয়ে নিতে হবে । এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, মৌচাষী সহিদুল ইসলাম ৬/৭ বছর থেকে মৌ চাষ করেন আমাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখেন। গত বছর থেকে বিভিন্ন প্রদর্শনী খেতে তিনি মৌ বাক্স বসান, তাতে তিনি পর্যাপ্ত পরিমাণ মধু আহরণ করতে পারেন এবং কৃষকের ২০ % পর্যন্ত ফলন বেশি হয় গত তিনদিন আগে হঠাৎ করে তিনি আমাকে জানান তাঁর মৌমাছিগুলো মারা যাচ্ছে । আমি দ্রুততার সঙ্গে আমি সম্মানিত স্যার অধ্যাপক  ড. শাখাওয়াত মামুন স্যারের সঙ্গে যোগাযোগ করি। তিনি গঠনমূলক কিছু পরামর্শ দিয়েছেন আশা করি কৃষক তাতে উপকৃত হবেন। আমরাও চেষ্টা করব কৃষক যতোটুকু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন উপজেলা পরিষদের মাধ্যমে তাকে সহযোগিতা করার।

নিউজ টি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন...

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2020 krishinews24bd

Site Customized By NewsTech.Com