1. mahbub@krishinews24bd.com : krishinews :

বন্যার পরও সিলেটে আউশের ফলনে লাভের আশা কৃষকের

  • আপডেট টাইম : Sunday, October 11, 2020
  • 381 Views
বন্যার পরও সিলেটে আউশের ফলনে লাভের আশা কৃষকের
বন্যার পরও সিলেটে আউশের ফলনে লাভের আশা কৃষকের

নিউজ ডেস্কঃ
সিলেট অঞ্চলে তিন দফা বন্যায় ক্ষয়ক্ষতির পরও আউশ ধানের ফলন ভালো হয়েছে। এবার দুই লাখ পাঁচ হাজার ৫৯৯ হেক্টর জমির ধান শতভাগ কর্তন শেষে পাঁচ লাখ ৬৯ হাজার ১৬৭ টন চাল উৎপাদন হয়েছে। গত বছরের তুলনায় এবার অতিরিক্ত ১২ হাজার ৯৯৯ হেক্টর জমিতে এক লাখ এক হাজার ৮৭৫ টন ধান বেশি উৎপন্ন হয়েছে বলে জানা গেছে।

হিসাব অনুযায়ী, বিভাগের পুরো আউশ ধান লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের অর্ধেকের চেয়ে সামান্য কম শুধু সিলেটে উৎপাদন হয়েছে। যার পরিমাণ দুই লাখ টনের চেয়ে বেশি। এছাড়া বন্যায় এ অঞ্চলে তিন হাজার ৩৮২ হেক্টর আউশ ধানের জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, সিলেট বিভাগের চার জেলায় ২০২০-২১ মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে আউশ ধানের আবাদ বেশি হয়েছে। এবার দুই লাখ সাত হাজার ৯৫৬ হেক্টর লক্ষ্যমাত্রা থাকলেও আবাদ হয়েছে দুই লাখ আট হাজার ৯৮১ হেক্টর; যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে এক হাজার ২৫ হেক্টর বেশি। এদিকে এবার বন্যায় বিভাগের চার জেলায় তিন হাজার ৩৮২ হেক্টর আউশ ধানের জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে মৌলভীবাজারে শূন্য হলেও সিলেটে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত জমির পরিমাণ দুই হাজার ২৮৬ হেক্টর। এছাড়া হবিগঞ্জে ২৭২ ও সুনামগঞ্জে ৮২৪ হেক্টর জমিতে ধান চাষ হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এবার সিলেট জেলায় ৭৯ হাজার ৫২ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের আবাদ হয়েছিল। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পরও ৭৬ হাজার ৭৬৬ হেক্টর জমির ধান কর্তন করা হয়েছে। এর মধ্যে উফশী ৭৪ হাজার ৬৪১ ও স্থানীয় জাতের দুই হাজার ১২৫ হেক্টর রয়েছে; যা থেকে দুই লাখ ১০ হাজার ৫৬২ টন চাল উৎপাদিত হয়েছে।

একইভাবে মৌলভীবাজার জেলায় ৫৬ হাজার ৮৫২ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের আবাদ ও কর্তন করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে উফশী ৫৬ হাজার ৭৮৭ ও স্থানীয় জাতের মাত্র ৩০ হেক্টর রয়েছে। এ ধান থেকে এক লাখ ৬২ হাজার সাত টন চাল উৎপাদিত হয়েছে।

এদিকে হবিগঞ্জ জেলায় ৫২ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের আবাদ হয়েছিল। কিছু জমি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর ৫২ হাজার ২২৮ হেক্টর জমির ধান কর্তন করা হয়েছে। এর মধ্যে উফশী ৫১ হাজার ৮৫৮ ও স্থানীয় জাতের ৩৭০ হেক্টর। এ ধান থেকে উৎপাদিত হয়েছে এক লাখ ৪৫ হাজার ২৬১ টন চাল।

অন্যদিকে সুনামগঞ্জ জেলায় ২০ হাজার ৫৭৭ হেক্টর জমিতে আউশ ধানের আবাদ হয়েছিল। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পরও ১৯ হাজার ৭৫৩ হেক্টর জমির ধান কর্তন করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে উফশী ১৯ হাজার ৩৯৮ ও স্থানীয় জাতের ৩৫৫ হেক্টর। এর থেকে পাওয়া গেছে ৫১ হাজার ৩৩৮ টন চাল।

এ বিষয়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সিলেট অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক কৃষিবিদ শ্রীনিবাস দেবনাথ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কৃষকদের জীবনমান উন্নয়নে বেশকিছু পদক্ষেপ নিয়েছেন। এজন্য কৃষিক্ষেত্রে কৃষকরা এগিয়ে আসছেন। গত দু’তিন বছর থেকে এ অঞ্চলের আউশের ফলন ভালো হচ্ছে। তা ধরে রাখতে কৃষি বিভাগের সব পর্যায়ের কর্মকর্তারা অগ্রণী ভূমিকা পালন করছেন।
সুত্রঃ শেয়ার বিজ নিউজ

নিউজ টি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন...

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2020 krishinews24bd

Site Customized By NewsTech.Com