1. mahbub@krishinews24bd.com : krishinews :
শিরোনাম
কানাইঘাটের কৃষিতে আধুনিক ও যুগোপযোগী সংযোজন সমলয় কর্মসূচি পরির্দশনে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সিলেটের  উপ-পরিচালক প্রাণ এগ্রোর বন্ডে বিনিয়োগ নিরাপদ: শিবলী আখের দাম পরিশোধে ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দ পেলো বিএসএফআইসি ৩০৭ কোটি টাকায় ৬০ হাজার টন টিএসপি ও ইউরিয়া সার কিনবে সরকার রাজবাড়ীতে হালি পেঁয়াজ চাষে ব্যস্ত কৃষকরা কৃষি নিউজ এর পক্ষ থেকে মহান বিজয় দিবসের শুভেচ্ছা। বেতাগীতে মাঠ ভরা আমনের সবুজ ধানে দোল খাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন শায়েস্তাগঞ্জে ১৩০০ কৃষক পেলেন সরকারি প্রণোদনা ‘কৃষিপণ্য রফতানির ক্ষেত্রে পূর্বশর্ত পূরণে কাজ করছে সরকার’ দেশে দুর্ভিক্ষের আশঙ্কা নেই: খাদ্যমন্ত্রী

সাত মাসে ১৭ হাজার কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণ

  • আপডেট টাইম : Monday, February 21, 2022
  • 103 Views
সাত মাসে ১৭ হাজার কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণ
সাত মাসে ১৭ হাজার কোটি টাকার কৃষিঋণ বিতরণ

চলতি অর্থবছরে (২০২১-২২) ব্যাংকগুলোর কৃষি খাতে ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ২৮ হাজার ৩৯১ কোটি টাকা। ইতোমধ্যে অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই- জানুয়ারি) কৃষি ও পল্লীঋণ খাতে ১৭ হাজার ৫৫ কোটি ৬০ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ করেছে বিভিন্ন ব্যাংক। যা মোট লক্ষ্যমাত্রার ৬০ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ। আলোচিত সময়ে কৃষিঋণ বিতরণ কিছুটা বাড়লেও আদায়ের পরিমাণ কমেছে।

খাত সংশ্লিষ্টরা বলেন, করোনা মহামারিতে বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগ কম থাকলেও খাদ্যপণ্য উৎপাদনের জন্য সরকার কৃষি খাতে প্রণোদনাসহ স্বাভাবিক ঋণ বিতরণে গুরুত্ব দিয়েছে। অনেকে আবার চাকরি হারিয়ে গ্রামে নতুন করে কৃষিকাজ শুরু করেছেন। এতে বাড়ছে কৃষিঋণ বিতরণ।

বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিবেদন বলছে, চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে কৃষি ও পল্লীঋণ খাতে ১৭ হাজার ৫৫ কোটি ৬০ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ করেছে ব্যাংকগুলো। আগের অর্থবছরে (২০২০-২১) একই সময়ে কৃষি ও পল্লীঋণ খাতে ১৪ হাজার ১৪৮ কোটি ৭২ লাখ টাকা বিতরণ করে ব্যাংকগুলো, যা ছিল ওই বছরের ব্যাংক খাতের বার্ষিক লক্ষ্যমাত্রার ৫৩ দশমিক ৮১ শতাংশ। ফলে চলতি বছরে আগের অর্থবছরের একই সময়ের (প্রথম সাত মাস) তুলনায় ঋণ বিতরণ বেড়েছে দুই হাজার ৯০৬ কোটি ৮৮ লাখ টাকা।

চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে কৃষিঋণ বিতরণে ব্যাংকগুলো কিছুটা পিছিয়ে পড়লেও তৃতীয় মাস থেকে পরিস্থিতির পরিবর্তন ঘটে। কৃষি খাতে জানুয়ারি মাসে বিতরণ হয়েছে দুই হাজার ৫৫৮ কোটি টাকা। এর আগের মাস ডিসেম্বরে ঋণ বিতরণ হয় তিন হাজার ৭২৪ কোটি টাকা। নভেম্বরে বিতরণ হয় দুই হাজার ৮৬৪ কোটি টাকা, অক্টোবরে দুই হাজার ৬৯৫ কোটি টাকা এবং সেপ্টেম্বরে দুই হাজার ৫৩৬ কোটি টাকা ঋণ বিতরণ করে ব্যাংকগুলো। এতে সামগ্রিকভাবে কৃষিঋণ বিতরণে ইতিবাচক পরিবর্তন দেখা দেয়।

তবে চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) কৃষিঋণ বিতরণ কমেছিল ২১ শতাংশ। অর্থবছরের আগস্টে এক হাজার ৭৩২ কোটি টাকা এবং জুলাইয়ে বিতরণ করা কৃষিঋণের পরিমাণ ছিল ৯৪২ কোটি টাকা। সব মিলিয়ে অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে (জুলাই-জানুয়ারি) কৃষি ও পল্লীঋণ খাতে ১৭ হাজার ৫৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা বিতরণ করা হয়, যা লক্ষ্যমাত্রার ৬০ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ।

চলতি অর্থবছরে রাষ্ট্রায়ত্ত ৮টি ব্যাংকে কৃষি খাতে ঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে ১১ হাজার ৪৫ কোটি টাকা। এর মধ্যে প্রথম সাত মাসে লক্ষ্যমাত্রার ৬৪ দশমিক ২৩ শতাংশ বিতরণ হয়েছে। তবে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের মধ্যে বেসিক ব্যাংক ঋণ বিতরণের দিক থেকে পিছিয়ে আছে। এ ব্যাংকটি সাত মাসে মাত্র ১৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ ঋণ বিতরণ করেছে। আর বেসরকারি ৪১টি ব্যাংকের কৃষিঋণ বিতরণের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১৬ হাজার ৬৬৪ কোটি টাকা। আলোচিত সময়ে এসব ব্যাংক ঋণ বিতরণ করেছে ৫৬ দশমিক ১০ শতাংশ।

এদিকে, চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে কৃষিঋণ বিতরণ কিছুটা বাড়লেও আদায়ের পরিমাণ কমেছে। এ সময়ে বিতরণের বিপরীতে কৃষিঋণ আদায় হয়েছে ১৫ হাজার ৪৬৪ কোটি টাকা। গত অর্থবছরের একই সময়ে কৃষিঋণ আদায় হয়েছিল ১৬ হাজার ৫৬ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আলোচিত সময়ে কৃষিঋণ বিতরণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে ৪৮ হাজার ৩৫৫ কোটি টাকা।

সুত্রঃ জাগো নিউজ

নিউজ টি শেয়ার করে অন্যদের জানার সুযোগ করে দিন...

এ জাতীয় আরো খবর..

© All rights reserved © 2020 krishinews24bd

Site Customized By NewsTech.Com